মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘সময় এখন বাংলাদেশের’

ভোরের সংলাপ ডট কম :
জুন ১১, ২০১৭
news-image

ক্রীড়া প্রতিবেদক: নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পর জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ক্রিকবাজের ত্রিসতান হোল্ম তার প্রতিবেদনে শিরোনাম করেছিলেন, ‘ক্রিকেটে আসছে বাংলাদেশ যুগ।’ কিন্তু গেল রাতে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে অস্ট্রেলিয়ার বিদায়ে অনেক ক্রিকেটবোদ্ধারা আওয়াজ তুলছেন ‘সময় এখন বাংলাদেশের।’ আসলে কী তাই?

গত ২০১৫ সালের পর থেকে একের পর রূপকথার জন্ম দিচ্ছে বাংলাদেশ। মূলত মাশরাফি বিন মুর্তজার ছোঁয়ায় বদলে গেছে টিম টাইগার্স। টানা পাঁচ সিরিজ জয়। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৫-০ ব্যবধানে সিরিজ জেতার পর পাকিস্তানকে ৩-০, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ।

এরপর ২০১৫ সালের বিশ্বকাপেও নিজেদের শক্তিমত্তার জানান দেয় বাংলাদেশ। আফগানিস্তান, স্কটল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ জয় পায় মাশরাফি বাহিনী। আর সেই সুবাদে ‌র‌্যাঙ্কিংয়ে নয় থেকে সাত নম্বরে উঠে আসে বাংলাদেশ। সর্বশেষ চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে কিউই বধের পর একদিনের ক্রিকেট এখন নাম্বার সিক্স চণ্ডিকা হাতুরুসিংহের ছাত্ররা।

বিশেষ করে নিউজিল্যান্ডের কাছে হারতে বসা বাংলাদেশ যেভাবে ঘুরে দাঁড়াল, এনিয়ে বিশ্বজুড়ে চলছে বন্দনা। যে ম্যাচের মূল দুই কারিগর সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টপাটপ চার উইকেট পড়ে যাওয়ার পর টাইগার ভক্তরা ভেবেই নিয়েছিল বাংলাদেশ হারবে! কিন্তু সবার ধারণা ভুল প্রমাণ করে ২২৪ রানের অবিশ্বাস্য জুটি গড়ে রিয়াদ-সাকিব। ওই এক জুটিতেই জয়ের হাসি ফুটল মাশরাফিদের মুখে।

১৯৯৭ সালে আইসিসি ট্রফি জয়ের মধ্য দিয়ে সাফল্যের যাত্রা শুরু হয়েছিল বাংলাদেশের। সে ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের দাপটের সামনে মাথা নোয়াতে হয়েছে সবকটি টেস্ট খেলুড়ে দেশকে। তরতর করে এগোতে থাকে বাংলাদেশ। একটা সময় ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাট টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ ছিল বড়ই অচেনা। সেই অচেনা ভাবটা এখন খুব কমই দেখা যায়।

আরও একটু পেছনে ফিরে তাকালে, ১৯৭৯ সালে আইসিসি ট্রফিতে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বপ্রথম আত্মপ্রকাশ করে বাংলাদেশ। সেই আসরে চার ম্যাচের দু’টিতে হার আর দুই ম্যাচ জিতে বাংলাদেশ। তার বছরে সাতেক পর ১৯৮৬ সালের ৩১ মার্চ এশিয়া কাপের মঞ্চে প্রথমবারের মতো একদিনের ক্রিকেটে পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ।

১৯৯৭ সালে বাংলাদেশ আইসিসি ট্রফি ঘরে তোলে। যার বদৌলতে ১৯৯৯ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপ ক্রিকেটে অংশগ্রহণের সুযোগ পায়। অভিষেক আসরেই চমক লাগিয়ে দেয় বাংলাদেশ। সেবার বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে পরাজিত হয় পাকিস্তান এবং স্কটল্যান্ড। ১৯৯৭ সাল থেকে আইসিসির ওয়ানডে খেলুড়ে দেশ হিসেবে খেলছে বাংলাদেশ। ২০০০ সালের ২৬ জুন টেস্ট ক্রিকেটেও নাম লেখায় মুশফিক-সাকিবরা।
সূত্র: ঢাকা টাইমস

bhorersanglap