শনিবার, ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

যারা নির্বাচন চায় তারা সংঘাত চাইতে পারে না

ভোরের সংলাপ ডট কম :
জুলাই ৩১, ২০২৩
news-image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যারা নির্বাচন চায় তারা সংঘাত চাইতে পারে না। সোমবার (৩১ জুলাই) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন তিনি। বিএনপির কর্মসূচি প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, গোলাপবাগে হোঁচট খেয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই গেলো। অনুমতি নিয়েই তো গেলো। অনুমতি আর নেবো না। দখল করে ফেলছি ঢাকা, বাংলাদেশ। এত সোজা রাজনীতি? তাদের উদ্দেশ্য তারা একটি লাশ ফেলবে। পুলিশের ওপর যে হামলাটা, পুলিশ তো বাধা দেবেই।

তিনি বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম রোড বন্ধ করে দিলে পুলিশ চোখ বন্ধ করে রাখবে? আমি পুলিশকে দোষ দেবো না। জনগণের জানমাল রক্ষা করার দায়িত্ব পুলিশের। পুলিশের ওপর যে হামলা হয়েছে, তারা তো বাধা দেবেই। তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম প্রবেশ পথের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে। পুলিশ চুপ করে থাকবে? এটি পুলিশের দায়িত্ব জনগণের জানমাল রক্ষা করা-চলাচল উন্মুক্ত রাখা।

নির্বাচন সামনে রেখে ঢাকার প্রবেশপথ অবরোধের কর্মসূচি দেওয়ায় বিএনপির মার্কিন ভিসানীতির আওতায় পড়া উচিত বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে সরকারের অবস্থান কী জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকার সরকারের পথেই আছে। সরকারের উদ্দেশ্য শান্তিপূর্ণ অবস্থা বজায় রাখা। নির্বাচনের আগেও, নির্বাচনের পরেও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ। পারছেন না তো, প্রশ্নে তিনি বলেন, কেন পারবো না, গতকাল যে ঘটনা ঘটে গেল। অ্যাপায়নের পরে তাদের কর্মীদের অবস্থা কী? খবর নেই। সেই মুড আছে? সবাইকে অতিরিক্ত জামাকাপড় নিয়ে ঢাকায় আসতে বলেছে তারা। বেচারারা জামাকাপড় নিয়ে এসে থাকতে পারলো না, ফিরে গেল। টাকাও শেষ-দুই হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছিল।

তবে আওয়ামী লীগ কোনো উত্তেজনায় যাবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, আমরা নির্বাচন চাই, উত্তেজিত হলে তো আমাদের চলবে না। আমরা সরকারি দল। তারা যে কোনো মূল্যে যে কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি করে ক্ষমতা থেকে শেখ হাসিনাকে হটাতে চায়। এটি তাদের টার্গেট। আমাদের তো সেই টার্গেট নেই। নির্বাচনে জনগণ চাইলে আবারও ক্ষমতায় থাকবো, জনগণ না চাইলে থাকবো না নিয়মানুযায়ী।
bhorersanglap

আরও পড়তে পারেন