মঙ্গলবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ছুটিতে যেতে পারেন লাওস, জেনে নিন কিছু তথ্য

ভোরের সংলাপ ডট কম :
জুন ২৪, ২০১৭
news-image

লাওস (লাও ভাষা: ເມືອງລາວ ম্যিয়াং লাউ বা ປະເທດລາວ পাঠেট্‌ লাউ) দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি স্বাধীন রাষ্ট্র।
এর সরকারি নাম গণতান্ত্রিক গণপ্রজাতন্ত্রী লাওস (লাও ভাষায়: ສາທາລະນະລັດ ປະຊາທິປະໄຕ ປະຊາຊົນລາວ সাঠালানালাট্‌ পাসাঠিপাটাই পাসাসন্‌ লাউ)।

দেশটি পূর্বে ইন্দোচীন ইউনিয়ন তথা ফরাসি ইন্দোচীনের অংশ ছিল। ১৯৫৩ সালে দেশটি স্বাধীনতা লাভ করে। দেশটি ১৯৬০-এর দশকে ভিয়েতনাম যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে।
১৯৭৫ সালে একটি সাম্যবাদী বিপ্লব দেশটির ছয়-শতাব্দী-প্রাচীন রাজতন্ত্রের পতন ঘটায় এবং একটি গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র হিসেবে দেশটি পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়।

লাওস একটি পর্বতময়, স্থলবেষ্টিত দেশ। এর উত্তরে চীন, পূর্বে ভিয়েতনাম, দক্ষিণে ক্যাম্বোডিয়া, এবং পশ্চিমে ও উত্তর-পশ্চিমে থাইল্যান্ড ও মিয়ানমার।
লাওস খনিজ সম্পদে সমৃদ্ধ এবং জাতিগতভাবে বিচিত্র। লাও ভাষা এখানকার সরকারি ভাষা। ভিয়েনতিয়েন বা ভিয়াং চান দেশের বৃহত্তম শহর ও রাজধানী।

অন্যান্য তথ্য :
নাম : লাওস
রাজধানী : ভিয়েনতিয়েন বা ভিয়াং
রাষ্ট্রীয় ভাষাসমূহ : লাও, ফরাসি
সরকার : সমাজতন্ত্র
রাষ্ট্রপতি : চুম্মালি সাইয়াসন
প্রধানমন্ত্রী : বুয়াসন বুপফায়ান
স্বাধীনতা : ১৯ জুলাই ১৯৪৯ (ফ্রান্স থেকে)
জনসংখ্যা : আনুমানিক ৬৫২১৯৯৮ জন
মুদ্রা : KIP (LAK)
কলিং কোড : +856
তথ্য ও ছবি : TOD HOLIDAYS