বৃহস্পতিবার, ৫ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

অযোধ্যার রাম মন্দিরে মুসলিমদের জন্য ইফতারের আয়োজন

ভোরের সংলাপ ডট কম :
মে ২৫, ২০১৯
news-image

পবিত্র রমজান মাসে সম্প্রীতির বন্ধন বাড়াতে রাম মন্দিরে ইফতারের আয়োজন করেছে অযোধ্যাবাসী। তবে এতে কোনো রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। হিন্দুদের সঙ্গে মুসলিমদের সম্প্রীতি বাড়াতে এই ইফতারের আয়োজন করা হয়।

রাম মন্দির না বাবরি মসজিদ, এই বিতর্কে বহু বছর ধরে রাজনীতির খেলায় দগ্ধ অযোধ্যাবাসী। সেই ক্ষতে একটু হলেও প্রলেপ লাগানোর জন্য এ আয়োজন বলে জানা যায়। কোনও রকম রাজনীতির রং বাদ দিয়েই ইফতারের আয়োজন করা হয়।

জানা যায়, গত ২০ মে সোমাবার অযোধ্যার ৫০০ বছরের পুরনো সরযু কুঞ্জ মন্দিরে মুসলিম রোজাদারদের জন্য ইফতারের আয়োজন করা হয়। ওই মন্দিরের প্রধান পুরোহিত মোহান্ত যুগল কিশোর শরণ শাস্ত্রী বলেন, অযোধ্যায় সব ধর্মের মানুষের মধ্যে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখতেই এই অরাজনৈতিক আয়োজন। এই অনুষ্ঠানের গায়ে যাতে রাজনীতির রং না লাগে, তার জন্যই লোকসভার সপ্তম দফার ভোট শেষ হওয়ার পরই ইফতারের আয়োজন করা হয়।

সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের সঙ্গে কথা বলার সময় মন্দিরের প্রধান পুরোহিত যুগল কিশোর জানান, এই নিয়ে তৃতীয় বার ইফতারের আয়োজন করা হচ্ছে এই রাম সীতা মন্দিরে। ভবিষ্যতেও করা হবে। প্রত্যেক ধর্মের উৎসব এভাবেই প্রত্যেকের উৎসাহের সাথে পালন করা উচিত।

মন্দির কর্তৃপক্ষের এই ইফতার আয়োজনের সিদ্ধান্তে রীতিমত খুশি স্থানীয় মুসলিমরা। ধর্ম এখানে মানুষকে মানুষের থেকে আলাদা করতে পারেনি। তারই নজির তৈরি করছেন অযোধ্যার আমজনতা। ধর্মের আরেক পিঠে রাজনীতির ছোঁয়াতেই মানুষের বিভেদ তৈরি হয়, তা ভালোই বুঝেছেন তাঁরা। তাই অযোধ্যা এখন রামমন্দিরের আশায় বসে নেই। একে অপরের সঙ্গে মিশে গিয়ে ক্ষত ভোলার চেষ্টাই করে যাচ্ছেন তাঁরা।