রবিবার, ১লা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে সেনাবাহিনী নামানোর দাবি ঐক্যফ্রন্টের

ভোরের সংলাপ ডট কম :
ডিসেম্বর ১৬, ২০১৮
news-image

মাঠপর্যায়ে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে ১৮ ডিসেম্বরের মধ্যে সেনাবাহিনীকে মাঠে নামানোর দাবি জানাচ্ছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।
রবিবার (১৬ ডিসেম্বর) সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এমন দাবি করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, ‘সরকারের আজ্ঞাবহ হয়ে পুলিশ ধানের শীষের প্রার্থীদের বাধা দিচ্ছে, পুলিশ কর্মকর্তারা প্রার্থী, কর্মী ও সমর্থকদের শাসাচ্ছে । সরকারী দলের সন্ত্রাসী বাহিনী গুলি করছে, বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি দিচ্ছে, গায়েবী মামলায় গ্রেফতার দেখানো হচ্ছে, নির্বাচনি অফিস ভাংচুর করা হচ্ছে এবং প্রচারের মাইক ভাংচুর ও  জব্দ করা হচ্ছে। সামগ্রিকভাবে এই নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে বন্ধের পথ খুঁজছে ক্ষমতাসীনরা।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের  শীর্ষ নেতা  ড. কামাল হোসেনসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের গাড়িবহরে আওয়ামী ক্যাডারবাহিনী হামলা করলেও প্রশাসন সম্পূর্ণ নিশ্চুপ  এবং আজ পর্যন্ত কোনো আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি গতকালের (১৫ ডিসেম্বর) হামলার তুলে ধরা হয়,
আজ ১৬ ডিসেম্বর রবিবার নরসিংদীর পাচদোনায় ড. মইন খানের নির্বাচনী মিছিলে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা করে মইন খান স্থানীয় নেতাকর্মীদের অবরুদ্ব করে রাখে এবং হামলায় ৫০ থেকে ৫৫ জন কর্মী আহত হয়।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাধারণ  সম্পাদক আহসান উল্লাহর স্ত্রী রিনা হাসানকে আটক করেছে পুলিশ ।

ড. কর্নেল অলি আহমেদের গাড়ি বহরে হামলা করেছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা।
চাঁদপুর-২ আসনের প্রার্থী ড. জালাল তার প্রয়াত বাবা-মার কবর জিয়ারতে গেলে আতর্কিত হামলা চালায় যুবলীগের সন্ত্রাসী বাহিনী। এতে জহির নামে এক কর্মীর মাথা ফেটে যায়।

বরিশাল-৪ মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা বিএনপির অফিস পংকজ দেবনাথের নেতৃত্বে  আওয়ামী সন্ত্রাসী বাহিনী দখল করে নিয়ে দলীয় সাইন বোর্ড লাগিয়ে মাইকে নৌকার প্রচার করছে। পুলিশ সম্পূর্ন নীরব।

১৪ ডিসেম্বর রাত ১০.২০ মিনিটে মিরপুর থেকে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুনকে আটক করছে পুলিশ।

বরিশালের উজিরপুর পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক  রোকনুজ্জামান টুলুকে গ্রেফতার করছে পুলিশ।

সাতক্ষীরা পৌর  বিএনপির  প্রচারণায় হামলা করে  ৮০ বছর বয়স্ক এক শিক্ষকসহ বহু কর্মীকে পিটিয়ে আহত করেছে আওয়ামী সন্ত্রাসী বাহিনী।

কুমিল্লার মেঘনা উপজেলা বিএনপির সভাপত রমিজ উদ্দিন লন্ডনিকে কুপিয়ে আহত করেছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা।

সিরাজগঞ্জে পুলিশের গুলিতে বিএনপি প্রার্থী রুমানা মাহমুদসহ আহত হন ২০ কর্মী। মেরিনা নামের এক কর্মীর দুই চোখে স্প্রিনটার বিদ্ধ হয়েছে।

ঝিনাইদহের  শৈলকূপা উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান খান দীপু, সাংগঠনিক সম্পাদক সাজেদুর রহমান সাজ্জাদ ও পৌর ছাত্রদল সভাপতি ইমদাদুল ইসলামকে আটক করছে পুলিশ।

হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মহিবুল ইসলাম শাহিন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মৈয়দ মুসফিক, স্বেচ্ছাসেবক দলনেতা জকি চৌধুরী, যুবদল নেতা গুলজার খানকে ডিবি পুলিশ কিছুক্ষণ আগে গ্রেফতার করছে।

পটুয়াখালী-৩ আসনের প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির স্ত্রী উপর নগ্ন হামলা চালিয়েছে আওয়ামী সন্ত্রাসী বাহিনী।

গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকা-৬ আসনের ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী সুব্রত চৌধুরীর উপর হাটখোলা মোড়ে হামলা চালিয়েছে আওয়ামী লীগের ক্যাডার বাহিনী। গত পরশু গেন্ডারিয়ায় সুব্রত চৌধুরীর কর্মীদের উপর হামলা হলে যুবদলের সাধারণ সম্পাদক বুলবুলসহ ৫ কর্মী আহত হন। এ সময় পুলিশ বুলবুলকে বিনা উসকানিকেত গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। এভাবে ৩০০ আসনে আওয়ামী ক্যাডার ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে হামলা-মামলা ও নির্যাতন অব্যাহত।

আরও পড়তে পারেন