রবিবার, ১লা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

আরও তিনটি নতুন ধানের জাত উদ্ভাবন

ভোরের সংলাপ ডট কম :
আগস্ট ৫, ২০১৭
news-image

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি) রোপা আমন মৌসুমে চাষাবাদ উপযোগী তিনটি নতুন উচ্চ ফলনশীল ধানের জাত উদ্ভাবন করেছে।

এ জাতগুলো হচ্ছে, ব্রি ধান ৭৯, ব্রি ধান ৮০ এবং ব্রি হাইব্রিড ধান ৬। গত ৫ এপ্রিল জাতীয় বীজ বোর্ডের সভায় এগুলোকে দেশের বিভিন্ন স্থানে নতুন ধানের জাত হিসেবে চাষাবাদের অনুমোদন দেয়া হয়।

রোববার বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রকাশনা ও জনসংযোগ বিভাগের প্রযুক্তি সম্পাদক ও প্রধান আবুল কাসেম এক তথ্য বিবরণীতে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, উদ্ভাবিত নতুন ধানগুলোর মধ্যে ব্রি ধান ৭৯ এর মূল বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এটি ১৮ থেকে ২১ দিন বন্যার পানিতে ডুবে থাকলেও ফলনের তেমন ক্ষতি হয় না। আর এতো দীর্ঘস্থায়ী বন্যার কবলে না পড়লে স্বাভাবিক অবস্থায় এটি হেক্টর প্রতি ৭ টন পর্যন্ত ফলন দিতে সক্ষম।

এর জীবনকাল আকস্মিক বন্যা সহনশীল অন্য একটি জাত ব্রি ধান ৫২ এর চেয়ে পাঁচ দিন আগাম। ব্রি ধান ৮০ এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এটি সুগন্ধযুক্ত সরু চালের জাত এবং রফতানি সম্ভাবনাময়।

এর বীজের রং খড়ের মতো এবং দেখতে এটি থাইল্যান্ডের জনপ্রিয় জেসমিন ধানের অনুরূপ। উপযুক্ত পরিচর্যা পেলে ব্রি ধান ৮০ এর ফলন হেক্টরে ৪ দশমিক ৫ টন থেকে ৫ টন পর্যন্ত পাওয়া যায়।

ব্রি হাইব্রিড ধান ৬ এর ফলন হেক্টর প্রতি ৬ থেকে সাড়ে ৬ টন। এটি ঢাকা, চট্টগ্রাম ও যশোর অঞ্চলে কৃষক পর্যায়ে চাষাবাদের জন্য অবমুক্ত করা হয়েছে।

আমন এবং বোরো উভয় মৌসুমে এটি চাষ করার উপযুক্ত। এ জাতের ধান গাছের কাণ্ড শক্ত বিধায় ঢলে পড়ার আশঙ্কা নেই। এ জাতের জীবনকাল ১১৫ থেকে ১২০ দিন।