রবিবার, ১লা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং

ঈদে গ্রাহকের পছন্দ ওয়ালটন টেম্পারড গ্লাস ডোর ফ্রিজ

ভোরের সংলাপ ডট কম :
জুন ২৪, ২০১৭

ওয়ালটনের শোরুমে ফ্রিজ দেখছেন ক্রেতারাদিন-চারেক পরেই শেষ হতে চলেছে রমজান মাস। দীর্ঘ একমাসের সিয়াম-সাধনার পরেই দেশজুড়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। ঈদে পোশাকের পাশাপাশি ইলেকট্রনিক্স পণ্যের চাহিদা বেড়েছে। যার শীর্ষে রয়েছে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন পণ্য।

জানা গেছে, ক্রেতাদের পছন্দ আকর্ষণীয় মডেলের ফ্রিজ, টিভিসহ অন্যান্য হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্য। ঈদুল ফিতর’কে কেন্দ্র করে চলতি রমজান মাসে দুই লাখের বেশি ফ্রিজ এবং ৫৭ হাজার এলইডি টেলিভিশন বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিল ওয়ালটন। পাশাপাশি, এবারের রোজায় গতবারের চেয়ে ৩০ শতাংশ বেশি হোম অ্যাপ্লায়েন্সেস বিক্রির টার্গেট নিয়েছে দেশীয় ব্র্যান্ডটি। লক্ষ্যমাত্রা পূরণে ওয়ালটন রোজার শুরুতেই বাজারে ছেড়েছে ২৬টি নতুন মডেলের ফ্রস্ট ও নন-ফ্রস্ট ফ্রিজ, ৩২ ইঞ্চির ৬ মডেলের এলইডি টিভি। নতুন মডেলের হোম অ্যাপ্লায়েন্সেসের মধ্যে রয়েছে রাইস কুকার, জুসার, ব্লেন্ডারসহ বেশকয়েকিট পণ্য। ফলে, চলতি রমজানে ওয়ালটনের বিক্রি অনেক বেড়েছে বলে জানিয়েছেন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে কর্মরত ওয়ালটন বিপণন বিভাগের এরিয়া ম্যানেজাররা।

ওয়ালটনের রাজশাহী জোনের এরিয়া ম্যানেজার মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, ওয়ালটন পণ্যের প্রতি এ অঞ্চলের গ্রাহকদের আস্থা ও চাহিদা অনেক বেড়েছে। বিশেষ করে, ঈদকে ঘিরে বাজারে আসা ওয়ালটনের নতুন মডেলের ইনভার্টার প্রযুক্তির নন-ফ্রস্ট ও টেম্পারড গ্লাস ডোরের রেফ্রিজারেটর, ২৪ ও ৩২ ইঞ্চি এলইডি টিভি গ্রাহক পর্যায়ে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এরই প্রেক্ষিতে, রোজায় অন্যান্য ব্র্যান্ডের তুলনায় ওয়ালটন পণ্যের বিক্রি বেশ ভালো হচ্ছে জানান তিনি।

রাজশাহী জোনের মতো চট্টগ্রাম, কুমিল্লা, বগুড়া, সিলেট, নোয়াখালী, টাঙ্গাইলসহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলেও ওয়ালটন পণ্যের সন্তোষজনক বিক্রি বেড়েছে।

ওয়ালটন বিপণন বিভাগের বগুড়া জোনের এরিয়া ম্যানেজার রাফা নাঈম জানান, গত রমজানের তুলনায় চলতি রোজায় ওয়ালটন পণ্য ভালো বিক্রি হচ্ছে। বিক্রয় বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা রেখেছে ফ্রিজ, এলইডি টিভি ও রাইসকুকার। নিঁখুত ফিনিশিং ও আকর্ষণীয় আউটলুকের জন্য রোজায় এঅঞ্চলের গ্রাহক পছন্দের শীর্ষে উঠে এসেছে ওয়ালটনের ইনভার্টার প্রযুক্তির নন-ফ্রস্ট ফ্রিজ। কালারে আরো বৈচিত্র্য আনলে এসব ফ্রিজের চাহিদা আরো কয়েকগুণ বাড়বে বলেও জানান তিনি।

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্য ম্যানেজার মো. মাশরুর হাসান জানান, চলতি রমজান মাসে গতবারের চেয়ে ৩০ শতাংশ বেশি পণ্য বিক্রির টার্গেট নেওয়া হয়েছিল। ইতোমধ্যে, গত রমজানে হোম অ্যাপ্লায়েন্সেসের মোট বিক্রিকে ছাড়িয়ে গেছে এবারের বিক্রি। আশা করি, বিক্রির এই ধারা অব্যাহত থাকলে রমজান মাস শেষে টার্গেটের চেয়ে বেশি পণ্য বিক্রি হবে।

ওয়ালটনের মার্কেটিং বিভাগের নির্বাহী পরিচালক এমদাদুল হক সরকার বলেন, ঈদুল ফিতরকে ঘিরে রোজায় দুই লাখের বেশি ফ্রিজ ও ৫৭ হাজার এলইডি টিভির টার্গেট নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে, চলতি রমজান মাসে এখন পর্যন্ত যে পরিমান ফ্রিজ ও এলইডি টিভি বিক্রি হয়েছে তা গত রোজার বিক্রিকে ছাড়িয়ে গেছে। তার প্রত্যাশা- মাস শেষে টার্গেটের চেয়ে বেশি পণ্য বিক্রি হবে।